​অপ্রেম ডায়রি 4

​অপ্রেম ডায়রি 4

– সাম্যময় সেন গুপ্ত – 


যে সময়টি আমার কাছে “আজ”

পৃথিবীর অপর প্রান্তে, 

সেই সময়টিই “গতকাল”

অথএব, বুঝতেই পারছো –

আমার কাছে যা “এখনো”,

তোমার কাছে তা “ঘটে গেছে” ; 

দূরত্বে, সময়ের ব্যবধান ?

নাকি সময়ে, দূরত্বের ?

কৈফিয়ত চাইছি না -, 

আসলে কি জানো –

জীবনের সব অংকই 

মিলে যায়, শুধু …

উত্তরগুলো পছন্দ হয়না !

———-

Advertisements

এখনো ভালবাসো ?

এখনো ভালবাসো ?

   – সাম্যময় সেন গুপ্ত –

এখনো আকাশের বুকে,

লেগে আছে কিছু জল ভরা মেঘ,

অভিমানের মতো.


সব মেঘ উড়িয়ে –

সব চিঠি পুড়িয়ে –

আয়নায় নিজেকে বলো

“এ এক নতুন আমি !”


সত্যি ? 

—–

প্রেম ছত্রাক ( 48 )

প্রেম ছত্রাক ( 48 )

– সাম্যময় সেন গুপ্ত –

মনের কোন Delete বোতাম নেই তাই পরোতে  পরোতে জমতে থাকে ; অদরকারি কথা, অদরকারি মুখ, অদরকারি ঘটনা, অদরকারি জড়িয়ে ধরা, অদরকারি আদর, অদরকারি চুমু, অদরকারি চলে যাওয়া ও ফিরে আসা. মৃত্যু অবধি এই অদরকারির বোঝা বোয়ে বেড়ানো ! সেই জন্যেই কি মৃত্যুর আরেক নাম মুক্তি ?  এখন তো এমন অবস্থা হয়েছে, অদরকারির ভিড়ে, দরকারি কোন কিছু আর মনে জায়গাই পায়না. মনের কোন Delete বোতাম নেই তাই পরোতে  পরোতে জমতে থাকে ………

প্রেম

প্রেম 

– সাম্যময় সেন গুপ্ত –

প্রেমের বড় তাড়া ছিল 

ফিরে যাবার

তাই 

এক মুহূর্তের আঁচড়ে 

অনন্তকাল দিয়ে গেল


অনন্তকাল ঝিনুকের আঁধারে 

জ্বালা জমাট বাধে –

তবেই না তা মুক্ত হয় !

———–

এখনও

​   এখনও

  -সাম্যময় সেন গুপ্ত-

এখনও দুপুরগুলো 
তরুণীদের মতই উচ্ছল,
টক আমের বোঁটা ছেঁড়া 
কষ বেয়ে, যৌবনের গরল,
পর্দার আড়ালে 
সরল পাপের আমন্ত্রণ 

এখনও, অনেক চাদরে 
লেগে আছে রক্তাক্ত বিপ্লব,
অনেক জানালায় -
লেগে আছে স্বপ্নের ইস্তাহার 

গোলা পায়ড়ার দুপুর -
নষ্ট  দুপুর,
মিষ্টি দুপুর,
ছাদ-এ জলের ট্যাঙ্কের 
পেছনে ;  অনেক প্রমাণ ...... !

এখনও অনেক পথ বাকি 
তবুও তো চিঠি এলনা -,
আয়নায় চাঁদ ধরা গেলেও 
জ্যোতস্না এলো না  !

-----------

প্রেম ছত্রাক  ( 24 )

প্রেম ছত্রাক  ( 24 )

    – সাম্যময় সেন গুপ্ত –

শুকনো পাতায় ভরা জীর্ন ঘর 

চার দেয়ালে চার অধ্যায় টাঙানো পরপর, 

আসিও সংগোপনে

বিছানায় এক ফালি আলাপি রোদ্দুর 

জানালার পর্দায় বাতাসের সুর,

প্রিয়তমা আসিও সংগোপনে 

——

প্রেম ছত্রাক  ( 30 )

প্রেম ছত্রাক  ( 30 )

      -সাম্যময় সেন গুপ্ত-


তোমার প্রিয় সময়টাতে

পরলো মনে তোমার কথা 

হৃদয় বীণায় উঠলো বেজে 

অপার্থিব নিরবতা 

রাতের বুকে মুখটি গুজে 

দিন হারাবে মনের সুখে 

সাঁঝের আবির মাখিয়ে দিলাম 

লজ্জা রাঙ্গা তোমার মুখে 

——–

​বিক্রম – সনিকা 

​বিক্রম – সনিকা 

   – সাম্যময় সেন গুপ্ত –


রাত মাখা রাস্তায় 

উল্কা গতি ধাবমান গাড়ি 

গাড়ির ভেতর 

একজন সুন্দরি, একজন সুপুরুষ 

খানিক অন্ধকার, খানিক ভাললাগা,

খানিকটা নেশা, খানিক কুয়াশা 
এই সবই গাড়িটার 

সামনের সিটের কথা 

পেছনের সিট সহ অর্ধেকটা 

অনেকটাই পেছনে, বহু দুরে,

বহু মাইল দুরে, সুদুর অতীতে 
সেই সিট আলো মাখা, 

সিটে ছরানো লাজুক হাসি 

বাঁধো  বাঁধো চিঠি, প্রথম চুম্বন শিহরন 

স্থির ভালবাসা, আর স্নিগ্ধ প্রেম 
অর্ধেক গাড়ি, ধাবমান গাড়ি 

খাদে গিয়ে পরে, 

এখন চারিদিকে শুধুই দেখি 

অর্ধেক গাড়ি, অর্ধেক জীবন,

অর্ধেক হৃদয়, অর্ধেক মানুষ…..,
বাকি অর্ধেক গাড়ি পরে থাকে 

কালি ঝুলি মেখে, “আগেকার দিনে”
————–

News:

Accident kills Model, injures Tv Actor

অপ্রেম ডায়রি  ( 3 )

অপ্রেম ডায়রি ( 3 )

     – সাম্যময় সেন গুপ্ত –

তুমি কি আমায় চেনো ? দেখেছো আগে ?

যদি পৃথিবীর সমস্ত মানুষ একসাথে বলে “না বাপু, তোমায় আমরা চিনিনা কেউ !”, তখন আমি কি করবো ? কেমন করে পালাবো বুকের সেই শূন্য শীতলতার থেকে দুরে ? তাই বলি কি, যারা তোমায় চেনে আর চিনেছে খানিক, তাদের একটু খোঁজ খবর নিও. তারা খুব দামি, তাদের উষ্ণ উপস্থিতি বড় মুল্যবান. আমিও বুঝিনি আগে, নীল আকাশ, পাহাড়, সমুদ্র, ফুলের রাশি …….., এসব তুচ্ছ, হৃদয়হীন. এই পৃথিবীর  সব চেয়ে দামি ওই ধুক পুক করা হৃদয় আর হৃদয়ের উষ্ণতা.

_______